o-SATYAJIT-RAY-facebook
Arts Bengali Celebrity Films Movies

Reminiscing Ray – Finest Indian Filmmaker of All Time

Born on May 2 1921, to Sukumar Ray and Suprabha Ray, Satyajit Ray is regarded as one of the greatest Indian filmmakers of the 20th century; often referred to as the Bergman of Bengal. Birth and Early Life Ray was born to a distinguished family of artists, litterateurs, musicians, scientists and physicians. His grandfather Upendra Kishore was an innovator, a writer of children’s story books (popular to this day), an illustrator and a musician. His father, Sukumar Ray, trained as a printing technologist in England, was also Bengal’s most beloved nonsense-rhyme writer, illustrator and cartoonist (best known for his work

Read more
Bengali Top

এই শহর জানে আমার প্রথম সবকিছু !

কলকাতা স্মৃতির শহর, কলকাতা একটা ‘হয়ে যাওয়া’, ফুরিয়ে যাওয়া, বিগতযৌবনা, জাস্ট পাস্ট হয়ে যাওয়া বড় বেদনার শহর।আমাদের জন্মাবধি চেনা, পুরোনো, মলিন এই শহরটাকে এভাবেই দেখতে আমরা অনেকেই অভ্যস্ত। কিন্তু সেই দেখার মধ্যে কতটুকু নিখাদ সত্যি ? তবে যে লোকে বলে, এই শহরের মধ্যে আছে নাকি অন্য একটা শহর ? কলকাতা কি আদৌ কল্লোলিনী তিলোত্তমা হয়েছে না এ আমাদের ভাতঘুমের দিবাস্বপ্নের অকর্মন্য খোয়াঁড়ি ছাড়া, কিস্যু নয় ? এই সব প্রশ্ন ওর নিজের অভিজ্ঞতায় জারিয়ে নিয়ে প্রাণ ঢেলে একটি লেখা লিখেছেন এক নবীন নাট্যকর্মী তুর্ণা আজকের আনন্দবাজার পত্রিকায়। সাতসকালে হোয়াটসঅ্যাপে লেখাটা পেলাম সুহৃদ বন্ধুর কাছ থেকে যিনি নিজেও নাট্যকর্মী। তার পরেই খালি

Read more
Bengali

আহা, আজি এ বসন্তে

ফ্ল্যাটের পুবদিকের জানলাটা থেকে সূর্যের আলো বেশ মসৃন একখানা আলোর রাস্তা তৈরী করে ছড়িয়ে পরেছে খাটের পায়ের দিকটায়। অনেকটা রেশমের কুচির মতন চিকচিক করছে ধুলো, ওই আলোর রশ্মির মধ্যেখানটায়। ঘরদোর এলোমেলো ,লন্ডভন্ড। খাটের ওপর ইতস্তত নানা মাপের ইস্কুলের জামা, প্যান্ট ,ভেজা তোয়ালে, ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছত্তিরিশ। টেবিলের ওপর আধ-খাওয়া ম্যাগির প্লেটের ওপর অনেকক্ষণ থেকে একটা মাছি টার্গেট করে ভনভন করে উড়ছে । মোবাইলে বাজছে বিশু পাগলের গান, ” কে সে আমার স্বপনতরীর নেয়ে ? “…শম্ভু মিত্রের রক্তকরবী তুনীরের খুব প্রিয়। গিন্নি সকাল সকাল বাড়ি না থাকলেই সেদিন এইটা ও চালাবেই। ঝিনুক খুব রেগে যায়, বকবক করতেই থাকে ,”খালি একটাই নাটক তোমায়

Read more
Bangladesh Bengali

নির্বাসিত – চিত্র আলোচনা

না, মানে ঠিক রিভিউ লিখব বলে বসিনি এবার , কেননা এ ছবিটি আমায় সেই গড়পরতা আর পাঁচটি সম্ভাব্য ভালো ছবি দেখা অথবা তার আলোচনা করার পৌণপুনিকতা থেকে বিরত করেছে ।এ ছবি দানা বেঁধেছে মনের এমন এক বিপন্ন গহনে , যেখানকার নির্বাসনের বিষন্ন শাসন থেকে মুক্তি পাইনি আমি , এখনো । নন্দন তত্ব কি বলে জানি না , কিন্তু ‘নির্বাসিত’ দেখার পর ‘নন্দন’ প্রেক্ষাঘর থেকে বেরিয়ে এলাম যখন তখনও অসম্ভব শীতে কুঁকড়ে ছিল ভিতরটা। শো-ভাঙ্গা বিকেলের বাইরেটা তখন প্রায় নীলচে অন্ধকারে ঢেকে গ্যাছে । রাস্তার ওপারের মোহর কুঞ্জের গাছের উঁচু মগডালগুলোতে ডানা ঝটপট করে উড়ে যাচ্ছে , আবার এসে বসছে পাখিদের

Read more
Bengali Uncategorized

ফার্স্ট পার্সন ~

“The room is still the same, just the picture is tiltedUnlike the lost monsoon’s last hoursThere were rain-drenched flowers in the gardenMorning glory showers .   শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের ‘আনন্দভৈরবি’ অনেকেই পড়েছেন । সেই যে, ” আজ সেই ঘরে এলায়ে পড়েছে ছবি, এমনি ছিল না আষার শেষের বেলা ,উদ্যানে ছিল বরষা- পীড়িত ফুল, আনন্দ ভৈরবী। ..” তো সেই কবিতার ইংরিজি অনুবাদ করেছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ, সম্ভবত রেনকোট ছবিটি তৈরির সময়ে । যদিও মূল ছবিতে শেষ পর্যন্ত যে লাইনগুলো শোনা যায়, সেটা হিন্দিতে লিখেছিলেন গুলজার । কিন্তু ঋতুদার লেখা এই ইন্টারপ্রিটেশনটি আমার ব্যক্তিগতভাবে খুব প্রিয় ও তাই মনে রয়ে গেছে বহুদিন । ‘সে

Read more
Bengali Uncategorized

আমার আকাশ দেখা ঘুড়ি ~

ঘুড়িটা কাটলো ঠিক সঞ্জুদের বাড়ির ছাদের কোণাকুণি করে যে নারকোল গাছটা , ওর মাথার ওপরে । গোঁত্তা খেতে খেতে উত্তুরে হাওয়ায় সো-ও-ও-জা কেটে  আসছে টুকটুকিদের কারখানার ওপর  । আমি আর সত্য  ছুটছি পাগলের মত জোর, চোখটা আটকে আছে ঠায় আকাশে । ছাইগাদা পেরিয়ে ডোনাদের ভাঙ্গা পাঁচিল এর ওপর দিয়ে দিলাম এক প্রকান্ড লাফ,  ডানদিক ঘেঁষে টুকটুকিদের কলপাড় দিয়ে দে ছুট , দড়িতে মেলা জামাকাপড় গুলো  হ্যাঁচকা টানে গেল, থাকলো না পড়ল কে জানে , আর একটা মোড় ঘুরলেই তো পেয়ারাগাছটা আর তার গায়ে হেলান দেওয়া কচি বাঁশের লগি । ঘুড়িটা পড়ছেই , গোঁত খেতে খেতে প্রায় চলে এসেছে স্টীম ঘরের

Read more
Bengali Uncategorized

প্রো-গো-তিশীল

না ,আমার গোমাংসে রুচি নাই ।এমনকি শুকরের মাংসেও নহে । এক্ষণে পাঠক আমায় ধর্মান্ধ এবং টিকি দাড়ি স্পৃষ্ট ছুঁতমার্গীয় শ্রেণী উন্নাসিক প্রতিনিধি বলিয়া ঠাহর করিয়া লইতেই পারেন । সে তাহাদের ব্যক্তিগত অভিরুচি । কিন্তু আপন বক্তব্য পেশ করিতে গিয়া পাশের বাড়ির ভদ্রজনগণ সে বিষয়ে কি অভিমত পোষণ করেন বা করিবেন, মায় আমার বক্তব্যের সমর্থন করিবেন নাকি চূড়ান্ত অসমর্থনে আমার ধোপা নাপিত বন্ধ করিবেন , সে ভয় আমার নাই । তাই অকুন্ঠে বলি, গোমাংস ও বরাহ নন্দন উভয়ই গ্রহণ করিয়াছি এবং তাতে আমার ব্রাহ্মনত্বে বিশেষ হেলদোল হয় নাই । আমি এখনো শুদ্ধাচারে কালিপুজো করিতে সক্ষম এবং আমার ‘জাত’ জানলা দিয়া উড়াইয়া

Read more
Bengali Uncategorized

আমি অপার হয়ে বসে আছি ~

“নদী আমাদের কাছে ঠিক কেমন ছিল জানিস ? মায়ের মত । আমার তো মা ছিল না ।” এই পর্যন্ত বলেই হঠাত কেমন উদাস হয়ে,কাঁসার বাটি থেকে এক গাল মুড়ি নিয়ে চিবোতে শুরু করতেন আমার মাতামহ ।ওঁর এতক্ষণ ধরে বলে চলা নদীর গল্পের আঁকাবাঁকা চলনের রুপোলি খেইগুলো হারিয়ে যেত হঠাৎ| জানলার বাইরে কুয়াশা কুয়াশা কাদা ছাড়িয়ে, পানাপুকুর ছাড়িয়ে, সন্তুদের বাঁশবাগান ছাড়িয়ে, গঞ্জের বাজার ছাড়িয়ে , এমনকি দুরে রেল লাইনে থমকে থাকা কলকাতামুখো ট্রেন ছাড়িয়ে, মাতামহের দৃষ্টি স্থির হয়ে তাকিয়ে থাকত । আমিও অপলক তাকিয়ে থাকতাম ওঁর মুখের দিকে আর সেই নীরবতাটুকুকে বাঙ্ময় করে একসময় ট্রেনের বাঁশির আওয়াজ তীব্র হয়ে বাজত ।

Read more
Bengali Uncategorized

শীতলপাটি ও অঘ্রানের গল্প

কিছু কিছু কিসসা কোনদিন ফুরায় না , কিছু কিছু শীতকাল ও । তামাম ছোট বেলা থেকে দৈর্ঘে প্রস্থে বড় হয়ে ওঠাটার গায়ে গায়ে যে দ্বিতীয় ত্বকের মত স্নেহরং বোরোলিন লাগিয়ে দিত মা , জীবনের ওঠা পড়া যাতে সহজে গায়ে না লাগে।সেই বোরোলিন এখনো গায়ে লেগে আছে, অনভ্যস্ত চামড়ায় । অথচ জীবনের সব ওঠা পরা, ছেঁড়া কনুই এর চোট, পায়ের পাতার নিচে আড়াআড়ি কাটা, স্মৃতি সবই গায়ে লেগে গেছে নির্ভুল । ঠিক সেই ছিয়াশি সালের মত বছর সাত আটের আঠালো কুয়াশা এখনো ভিজে উঠছে পুরনো দস্তানার আড়ালের আরো পুরনো আঙ্গুলগুলোর ভাঁজে । নইলে কি ভাবেই বা ঘুম ভাঙলে এখনো ইঁদুরে কাটা

Read more
Bengali Uncategorized

হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

তখনও নটা পনেরো’র বোটটা ছাড়েনি । কোনক্রমে টিকেটটা ঘাটের হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের হাতে গুঁজে দিয়ে দৌড় লাগালাম উর্ধশ্বাসে । হেমন্ত মুখোপাধ্যায় মানে, আমি ওকে ওই নামেই মনে মনে ডাকি আর কি । উনি এই ফেরিঘাটের টিকেট কালেক্টর । আসলে হয়েছে কি , ভদ্রলোককে অবিকল হেমন্তবাবুর মতই দেখতে । ঐরকম হাইট , ব্যাকব্রাশ করা চুল, চোখে কালো মোটা ফ্রেমের চশমা আর সবচেয়ে ইম্পর্টেন্ট যেটা, সেটা এই ২০১৫ তেও ওঁর পরনে ধুতি শার্ট । নরুন পাড় ধুতির ওপর হাত গোটানো লম্বা ধোপাবাড়ি ফেরত বাংলা শার্ট । ওঁকে দেখছি প্রায় বছর সাতেক ঠিক এই ভাবেই । বয়েস প্রায় সত্তরের কোঠায়, কিন্তু চেহারাটা বেশ কেঠো

Read more